ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ‘লায়লা হিজড়া স্মৃতি পদক- ২০২২’ পেয়েছেন হিজড়া গুরু বকুল হাজী। বকুল হাজীর হাতে পদক তুলে দেন সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার এবং দৈনিক আজকের পত্রিকার সম্পাদক অধ্যাপক মো. গোলাম রহমান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিনি।IMG_2400

সোমবার (২১ নভেম্বর) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) সামনে উম্মুক্ত পায়রা চত্বরে ‘ট্রান্সজেন্ডার ডে অব রিমেমব্রেন্স’ ২০২২ পালন করে বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি (বন্ধু)। অনুষ্ঠানে “লায়লা হিজড়া স্মৃতি পদক ২০২২” হস্তান্তর করা হয় বকুল হাজীকে।

বাংলাদেশের ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়া জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা ও জীবনমান উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত করে এই জনগোষ্ঠীর অধিকার আদায়ের অগ্রপথিক হিসেবে কাজ করেছেন লায়লা হিজড়া। তিনি বাংলাদেশের প্রথম হিজড়া অধিকার কর্মী যিনি ২০০০ সালে সুস্থ জীবন নামক হিজড়া কমিউনিটি ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন এবং বন্ধুর সহযোগিতায় সংস্থাকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। তার সংগ্রামী জীবন হিজড়া জনগোষ্ঠীর মাঝে নেতৃত্ব বিকাশের পথ দেখায়। বন্ধু সোশ্যাল ওয়েল ফেয়ার সোসাইটি ২০২০ সাল থেকে লায়লা হিজড়া স্মৃতি পদক প্রবর্তন করে।

এ সময় লায়লা হিজড়াকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন সুস্থ জীবনের সাধারণ সম্পাদক হিজড়া গুরু ববি হিজড়া, সম্পর্কের নয়া সেতু’র সভানেত্রী জয়া শিকদার এবং মানবাধিকার ও সাংস্কৃতিকর্মী ইভান আহমেদ কথা। এছাড়াও সারাদেশে ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়া জনগোষ্ঠী নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলো ‘ট্রান্সজেন্ডার ডে অব রিমেমব্রেন্স’র অনুষ্ঠানে অংশ নেয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষা বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সিকদার মনোয়ার মুর্শেদ, সমাজসেবা অধিদফতরের উপসচিব ও পরিচালক (সামাজিক নিরাপত্তা) ড. মোঃ মোকতার হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের পরিচালক ও লেখিকা মৌলি আজাদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস এবং এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) জেন্ডার এবং সোশ্যাল ইনক্লুশন স্পেশালিস্ট নাসিবা সেলিম।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক ইঞ্জিনিয়ার নুর-এ- আলম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির (বন্ধু) চেয়ারপারসন আনিসুল ইসলাম হিরু।

অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করে বন্ধুর সাংস্কৃতিক দল ‘সত্ত্বা’। ত্যাগী এবং সংগ্রামী ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়াদের স্মরণে  প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

IMG_3810

KRP_535